আন্তর্জাতিক সিম্পোজিয়াম

আন্তর্জাতিক সিম্পোজিয়াম
ভাবনগর ফাউন্ডেশন বাংলাদেশের শিক্ষার্থী ও গবেষকদের নতুন ধরনের গবেষণাকর্মে উদ্বুদ্ধ করণের জন্য কাজ করে যাচ্ছে। বাংলাদেশ ও দক্ষিণ এশিয়ার কালচারাল স্টাডিজের বিচিত্র বিষয় নিয়ে পদ্ধতিগত ফিল্ডকর্ম, সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান ও সিম্পোজিয়াম আয়োজন করে আসছে। এরমধ্যে ২০১৩ ও ২০১৪ খ্রিষ্টাব্দে এথনোমিউজিকোলজি বিষয়ক দু’টি আন্তর্জাতিক সিম্পোজিয়াম আয়োজন করেছে।
ভাবনগর ফাউন্ডেশন মনে করে যে, এথনোমিউজিকোলজি শব্দটির বাংলা পরিভাষা হওয়া উচিত- সংগীতনৃবিদ্যা। সংগীতনৃবিদ্যাতে মূলত সংগীতের ধ্বনিমাধুর্যের সাথে জনগোষ্ঠীর বিচিত্র মানবিক অনুভূতি বিবেচনা ও বিশ্লেষণ করা হয়। আসলে, এক একটি জনগোষ্ঠী কীভাবে ঐতিহাসিকভাবে সংগীতচর্চার ভেতর নিজস্ব সমাজ, সংস্কৃতি, অর্থনীতি, রাজনীতি, কৃত্য, ইতিহাস, ধর্ম, মূল্যবোধ এবং অন্যান্য ঐতিহ্যকে ধারন ও বহন করে চলে- তা পর্যবেক্ষণ করাই এথনোমিউকোলজির প্রধান কাজ। এটি আজ ইউরোপ, আমেরিকা, এশিয়া ও অন্যান্য মহাদেশের বিভিন্ন দেশের উচ্চতর শিক্ষাব্যবস্থা তথা বিশ্ববিদ্যালয়ের মিউজিক, ইতিহাস, নৃবিজ্ঞান ও সমাজবিজ্ঞান বিভাগের পাঠক্রমের অন্তর্ভুক্ত। কিন্তু বাংলাদেশে এথনোমিউজিকোলজির ধারণা এখনো প্রায় অজ্ঞাত। এ পরিপ্রেক্ষিতে ভাবনগর ফাউন্ডেশন আমেরিকান ও এশিয়ান প-িতদের উপস্থিতিতে ঢাকার ধানম-িস্থ ইএমকে সেন্টারে ২০১৩ ও ২০১৪ খ্রিষ্টাব্দে যথাক্রমে এথনোমিউজিকোলজি অ্যান্ড পারফরমেন্স স্টাডিজ ও এথনোমিউজিকোলজি ফর বেঙ্গল স্টাডিজ শিরোনামে দুটি সিম্পোজিয়ামের আয়োজন করে। আমাদের জানামতে, বাংলাদেশে এথনোমিউজিকোলজি বিষয়ে এর আগে অন্যকোনো সেমিনার বা সিম্পোজিয়াম হয়নি। সেই বিচারে বাংলাদেশে এথনোমিউজিকোলজি বিষয়ে সিম্পোজিয়াম আয়োজনের প্রথম সফল দাবীদার ভাবনগর ফাউন্ডেশন।
ভাবনগর ফাউন্ডেশন আয়োজিত ২০১৩ খ্রিষ্টাব্দের ২০ ডিসেম্বর তারিখে আয়োজিত এথনোমিউজিকোলজি বিষয়ক প্রথম সিম্পোজিয়ামে প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন যথাক্রমেÑ বিশ্বখ্যাত সুপার হিউম্যান ড. ইউরি বজ্রমুণি, আমেরিকার দি ইউনিভার্সিটি অব শিকাগোর মিউজিক ডিপার্টমেন্টের এথনোমিউজিকোলজির পিএইচ.ডি. স্কলার রিহান্না খেসগি, নর্থওয়েস্টিং ইউনিভার্সিটির ল্যাঙ্গুয়েজ শিক্ষক ও পাফরমেন্স স্টাডিজ বিশেষজ্ঞ ড. মুঞ্জুলিকা রহমান, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সংগীত বিভাগের খন্ডকালীন শিক্ষক ড. সাইম রানা ও থিয়েটার এন্ড পারফরমেন্স স্টাডিজ বিভাগের প্রভাষক শাহমান মৈশান, রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের নাট্যকলা বিভাগের পিএইচ.ডি. স্কলার আলীম আল রাজী। এছাড়া, বিশেষজ্ঞ হিসেবে বক্তব্য রাখেন নৃত্যশিল্পী-গবেষক লুবনা মারিয়াম, জাহাঙ্গীনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের নাটক ও নাট্যতত্ত্ব বিভাগের অধ্যাপক ড. ইউসুফ হাসান অর্ক প্রমুখ।
ভাবনগর ফাউন্ডেশন আয়োজিত ২০১৪ খ্রিষ্টাব্দের ১১ সেপ্টেম্বর তারিখে অনুষ্ঠিত এথনোমিউজিকোলজি ফর বেঙ্গল স্টাডিজ বিষয়ক দ্বিতীয় সিম্পোজিয়ামে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য উপস্থাপন করেন জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলাম বিশ্ববিদ্যালয়ের মাননীয় উপাচার্য অধ্যাপক মোহীত উল আলম এবং উদ্বোধনী বক্তব্য প্রদান করেন আন্তর্জাতিক খ্যাতিসম্পন্ন স্থপতি রফিক আজম। তিনটি প্যানেলে বিভক্ত এই সিম্পোজিয়ামের তিনটি অংশে বক্তাদের পরিচিতি ও তাঁদের বক্তব্যের সার-সংক্ষেপ সম্পর্কে অবহিত করেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ভাষাবিজ্ঞান বিভাগের সভাপতি ও অধ্যাপক হাকিম আরিফ, ইউএনডিপি বাংলাদেশের মানবাধিকার-বিশেষজ্ঞ নজরুল জাহিদ এবং কথাসাহিত্যিক নূরননবী শান্ত। এথনোমিউজিকোলজি ও বেঙ্গল স্টাডিজের বিচিত্র বিষয়ে প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন জাপানের হিরোসিমা বিশ্ববিদ্যালয়ের কালচারাল এনথ্রোপলজি বিভাগের অধ্যাপক ড. মাসাহিকো তোগাওয়া, আমেরিকার দি ইউনিভার্সিটি অব শিকাগোর মিউজিক বিভাগের পিএইচ.ডি. স্কলার বার্টি কিবরিয়া, ভারতের সিধো-কানহো-বিরসা বিশ্ববিদ্যালয়ের সহকারী অধ্যাপক ড. নব গোপাল রায়, ভারতের শম্ভু নাথ কলেজের ভূগোলের সহকারী অধ্যাপক ও সংগীত-বিশেষজ্ঞ ড. শান্তনু দত্ত, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সংগীত বিভাগের শিক্ষক কমল খালিদ, জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলাম বিশ্ববিদ্যালয়ের থিয়েটার অ্যান্ড পারফরম্যান্স স্টাডিজ বিভাগের সভাপতি সৈয়দ মামুন রেজা এবং প্রভাষক আল্ জাবির প্রমুখ।
ভাবনগর ফাউন্ডেশনের এথনোমিউজিকোলজি বিষয়ক দু’টি সিম্পোজিয়ামে অংশগ্রহণকারী বক্তাগণ দীর্ঘদিন ধরে বাংলাদেশের ঐতিহ্যবাহী সংগীত, নৃত্য, নাট্য ও অন্যান্য পরিবেশনাশিল্প নিয়ে গবেষণারত। তাঁদের গবেষণায় অসাধারণভাবে সংগীতনৃবিদ্যার দৃষ্টিভঙ্গিতে বাংলার বিচিত্র ইতিহাস, ঐতিহ্য ও সংস্কৃতি বিশ্লেষিত হয়েছে। এ ধরনের সিম্পোজিয়াম আয়োজনের মূল উদ্দেশ্য হলো সাম্প্রতিক বিশ্বে চর্চিত নতুন সংগীতনৃবিদ্যার গবেষণাপদ্ধতির সাথে বাংলাদেশের তরুণ প্রজন্মের গবেষকদের পরিচিত করে তোলা। সম্প্রতি ভাবনগর ফাউন্ডেশন এথনোমিউজিকোলজি ফর বেঙ্গল স্টাডিজ সিম্পোজিয়ামে উপস্থাপিত বক্তৃতার লিখিতরূপ এবং অংশগ্রহণকারীদের পরিচিতি ও অনুষ্ঠানসূচি নিয়ে সংগীতনৃবিদ্যা শীর্ষক একটি স্মারক প্রকাশনা মুদ্রণ করেছে। ভাবনগর ফাউন্ডেশন মনে করে যে, এই সিম্পোজিয়াম স্মারকে মুদ্রিত প্রবন্ধ, বক্তৃতা, অনুষ্ঠানসূচি, বক্তাবৃন্দের পরিচিতি একদিকে বাংলাদেশের নৃতাত্ত্বিক ও সমাজতাত্ত্বিক গবেষণায় নতুন দিগন্ত উন্মোচন করবে এবং একই সঙ্গে বিশ্ববিদ্যালয় পর্যায়ের মিউজিক, ফোকলোর, এনথ্রোপলজি, ইতিহাস, সমাজবিজ্ঞান এবং অন্যান্য বিভাগের কার্যক্রমে একটি স্বতন্ত্র কোর্স হিসেবে এথনোমিউজিকোলজি গ্রহণ করার ব্যাপারে সহায়ক ভূমিকা রাখবে; অন্যদিকে আন্তর্জাতিক পরিমন্ডলে চর্চিত গবেষণাকর্মের সাথে বাংলাদেশের গবেষণাকর্মের এক ধরনের সম্পর্ক রচিত হবে।

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *